বাংলাদেশের ফাইভ-জি প্রযুক্তি সেবা দিতে চায় হুয়াওয়ে

টেকআলো প্রতিবেদক:এই মুহূর্তে বিশ্বের সর্বোচ্চ সংখ্যক ৫জি চুক্তি সম্পাদনকারী আন্তর্জাতিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে বাংলাদেশেও ফাইভ জি সম্প্রসারণে ভূমিকা রাখতে চায়। ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তফা জব্বারের সাথে বুধবার ঢাকায় বাংলাদেশ সচিবালয়ে তাঁর দপ্তরে হুয়াওয়ে টেকনোলজি কোম্পানির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ব্রুস লি সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাৎকালে তিনি বাংলাদেশে টেলিযোগাযোগ

উন্নত বিশ্বের সাথে ব্যবধান দূর করতে ফাইভ জি একটি সহায়ক শক্তি – মোস্তাফা জব্বার

টেকআলো প্রতিবেদক:ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, অতীতের তিনটি শিল্প বিপ্লবে শরীক হতে না পারায় শিল্পোন্নত বিশ্বের সাথে আমাদের বিশাল ব্যবধান তৈরি হয়েছে। শতশত বছরের সৃষ্ট এ ব্যবধান দূর করতে ফাইভ জি প্রযুক্তি হবে একটি বড় সহায়ক শক্তি। ফাইভ জি প্রযুক্তি মানে একটি নতুন সভ্যতার বাহন।

বাংলাদেশের টেলিযোগাযোগখাতে বিশ্ব ব্যাংকের সহায়তা প্রদানের আগ্রহ

টেকআলো প্রতিবেদক: বিশ্ব ব্যাংক বাংলাদেশের টেলিযোগাযোগ খাত বিশেষ করে ২০২৩ সালের মধ্যে ফাইভ -জি প্রযুক্তি চালু করতে সরকারের পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আর্থিক ও কারিগরি সহায়তা প্রদানের আগ্রহ প্রকাশ করেছে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এর সাথে মঙ্গলবার ঢাকায় বাংলাদেশ সচিবালয়ে তাঁর দপ্তরে বিশ্বব্যাংকের ডিজিটাল ডেভলপমেন্ট স্পেশালিস্ট

বাংলালিংক ইনোভেটর্স ৩.০-এর গ্র্যান্ড ফিনালেতে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা

টেকআলো প্রতিবেদক:উদ্ভাবনী তরুণদের জন্য আয়োজিত ডিজিটাল ব্যবসায়িক পরিকল্পনার প্রতিযোগিতা বাংলালিংক ইনোভেটর্স-এর তৃতীয় আসরের বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। বাংলাদেশের অন্যতম ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক উদ্ভাবনী তরুণদেরকে নতুন পরিকল্পনা, নতুন উদ্যোগ ও নতুন সৃষ্টিতে উৎসাহ দিতে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে আসছে। রাজধানীর রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনে অনুষ্ঠিত বাংলালিংক ইনোভেটর্স-এর গ্র্যান্ড ফিনালেতে

গ্রেটেস্ট পোটেনশিয়াল ফর এজ কম্পিউটিং কনসেপ্ট অ্যাওয়ার্ড অর্জন জেডটিই’র

টেকআলো প্রতিবেদক:এমইসি সল্যুশনে স্লাইস স্টোরের জন্য ‘গ্রেটেস্ট কমার্শিয়াল পোটেনশিয়াল ফর এজ কম্পিউটিং কনসেপ্ট অ্যাওয়ার্ড’ জিতে নিলো মোবাইল ইন্টারনেটে টেলিযোগাযোগ, এন্টারপ্রাইজ ও কনজ্যুমার প্রযুক্তি সেবাদানে বৈশ্বিকভাবে শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠান জেডটিই করপোরেশন। জেডটিই’র সাম্প্রতিক এ অর্জন ফাইভজি ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানটির উদ্ভাবন সক্ষমতা ও শীর্ষস্থানীয় অবস্থানের স্বীকৃতিস্বরূপ। ফাইভজি প্রযুক্তির বিকাশের সাথে সাথে এখন মোবাইল

৫জি খাতে জাপানের কেডিডিআই বাংলাদেশে বিনিয়োগ করবে

টেকআলো প্রতিবেদক:জাপানের দ্বিতীয় বৃহত্তম টেলিকম কোম্পানি কেডিডিআই বাংলাদেশে ৫জি, আইওটি, বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল এবং কানেক্টিভিটিখাতসহ ডিজিটাল প্রযুক্তিখাতে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে।ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এর সাথে আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ে তাঁর দপ্তরে কেডিডিআই এর গ্লোবাল আইসিটি ডিভিশনের জেনারেল ম্যানেজার হিরায়েসু (হিরু) মরিশিতা এর নেতৃত্বে

বাংলাদেশ ফাইভ-জি প্রযুক্তি চালুর প্রস্তুতি সম্পন্ন করছে- মোস্তাফা জব্বার

টেকআলো প্রতিবেদক: ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ফাইভ -জি প্রযুক্তি কেবল মোবাইলে কথা বলা কিংবা ইন্টারনেট ব্রাউজ করার প্রযুক্তি অথবা আমাদের জীবন যাপনের ক্ষেত্রে একটি ছোট্র ঢেউ না। অতীতের তিনটি শিল্প বিপ্লবের ট্রেন মিস করা আমাদের দেশটির জন্য ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার জন্য ফাইভজি প্রযুক্তি অপরিহার্য।

“ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি বৈশ্বিক কর্মসূচিতে রূপান্তর জাতির জন্য একটি বড় অর্জন”

টেকআলো প্রতিবেদক:ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি দেশের গন্ডি পেরিয়ে বৈশ্বিক কর্মসূচিতে রূপান্তর লাভ করেছে।। প্রযুক্তি দুনিয়ায় ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন একটি সফল বাংলাদেশের নাম। ২০০৮ সালে ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি ২০১৯ সালে কমনওয়েলথ টেলিযোগাযোগ সংস্থার (সিটিও) মূল প্রতিপাদ্য হিসেবে গ্রহণ ডিজিটাল বাংলাদেশের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রার প্রতিফলন।

কর্মজীবনে পরিবর্তিত প্রযুক্তির সাথে খাপ খাওয়াতে না পারলে টিকে থাকা যাবে না -মোস্তাফা জব্বার

টেকআলো প্রতিবেদক: ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, প্রযুক্তি প্রতিনিয়ত পরিবর্তনশীল। কর্মজীবনে এ পরিবর্তনের সঙ্গে নিজেদের খাপ খাওয়াতে না পারলে টিকে থাকা যাবে না। সামনের দিনগুলো ইন্টারনেট ব্রাউজ করার যুগ নয়, সামনের যুগ অত্যাধুনিক প্রযুক্তির যুগ। খুব সহসাই বাংলাদেশ বাংলাদেশে ৫জি প্রযুক্তি চালু হচ্ছে। প্রযুক্তির অভাবনীয় চ্যালেঞ্জ

ডিজিটাল প্রযুক্তি হচ্ছে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার চালিকা শক্তি -মোস্তাফা জব্বার

টেকআলো প্রতিবেদক: ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ডিজিটাল প্রযুক্তি হচ্ছে মূল চালিকা শক্তি। বাংলাদেশের ডিজিটাল রূপান্তরের ফলে দেশে ২০২৪ সালের মধ্যে এমন কোন বাড়ি থাকবে না, যে বাড়ীতে দ্রুতগতির ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের চাহিদা হবে না। জনগণের দোরগোড়ায় দ্রুতগতির ইন্টারনেট পৌঁছে দিতে বিটিসিএলসহ সংশ্লিষ্ট