করোনা পরবর্তী পৃথিবীতে টিকে থাকার হাতিয়ার হচ্ছে মেধা : টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

টেকআলো প্রতিবেদক:ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, করোনা পরবর্তী বিশ্বে অনিবার্য পরিবর্তনে খাপখাইয়ে টিকে থাকাই হবে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার হাতিয়ার হচ্ছে মেধা। যে জাতি যত বেশী এই মেধাসম্পদ কাজে লাগাতে পারবে চলমান চতুর্থ শিল্প বিল্পব বা ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবে তারা ততটা সফল হবে।বাংলাদেশের নতুন প্রজন্ম অত্যন্ত মেধাবি।

ফোর-জি সম্প্রসারণে মোবাইল অপারেটরদেরকে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর তাগিদ

টেকআলো প্রতিবেদক:দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের জীবনমান উন্নয়ন এবং ডিজিটাল প্রযুক্তি নির্ভর ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণের প্রয়োজনে ফোর-জি নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ ত্বরান্বিত করতে গ্রামীন ফোনসহ দেশের মোবাইল ফোন অপারেটরসমূহকে তাগিদ দিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।তিনি বলেন, মোবাইল ফোন ও নেটওয়ার্ক এখন মানুষের জীবনের শ্বাস প্রশ্বাসের মতো। জনগণকে পারস্পরিক সংযুক্ত রাখার দায়িত্বের পাশাপাশি

টিএন্ডটির শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে ইন্টারনেট বিহীন ডিজিটাল পাঠদান চালু করলেন টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

টেকআলো প্রতিবেদক:দেশে বিটিসিএল পরিচালিত টিএন্ডটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে ইন্টারনেট বিহীন ডিজিটাল পাঠদান কার্যক্রম চালু করা হয়েছে। এই পদ্ধতিটি চালু হওয়ার ফলে শিক্ষার্থীদের বই খাতা, কলম কিংবা চক-ডাস্টার পদ্ধতিতে প্রচলিত পাঠদান পদ্ধতির পরিবর্তে ডিজিটাল পদ্ধতিতে পাঠদানের প্রাতিষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হলো। বিটিসিএল পরিচালনাধীন ৮টি টিএন্ডটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে প্রাথমিকভাবে প্রি-স্কুল থেকে চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত

চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ইন্টারনেটকে মৌলিক অধিকার হিসেবে প্রতিষ্ঠা সময়ের দাবি : মোস্তাফা জব্বার

টেকআলো প্রতিবেদক:ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ইন্টারনেটকে মৌলিক অধিকার হিসেবে প্রতিষ্ঠা সময়ের দাবি।সবার জন্য বিশেষ করে দেশে শিক্ষা বিস্তারে ইন্টারনেট সহজলভ্য করতে সম্ভাব্য সবকিছু করতে সরকার বদ্ধপরিকর। শিক্ষার প্রসার এবং মেধাবি জাতি তৈরিতে ইন্টারনেটকে ব্যয় নয়, এটিকে রাষ্ট্রের বড় বিনিয়োগ হিসেবে দেখতে হবে।

ডিজিটাল খাতের উন্নয়নে বাংলাদেশের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি নরওয়ের

টেকআলো প্রতিবেদক:ডিজিটাল প্রযুক্তি বিকাশে বাংলাদেশ অভাবনীয় সফলতা অর্জন করেছে। বাংলাদেশের এই অর্জন অনুকরণীয়। ডিজিটাল টেলিকম খাতেরএই অর্জনকে আরও বেগবান করতে নরওয়ে বাংলাদেশের পাশে থাকবে। বাংলাদেশে নরওয়ের রাষ্ট্রদূত সিডসেল ব্লেকেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এর সাথে ২জুলাই ঢাকায় ডিজিটাল প্লাটফরমে এক বিদায়ী সাক্ষাতে এসব কথা বলেন। বৈঠককালে বাংলাদেশ ও নরওয়ে

সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ডিজিটাল কানেকটিভিটি নিশ্চিত করা হবে : টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

টেকআলো প্রতিবেদক:দেশের শতকরা ৬৫ ভাগ তরুণ জনগোষ্ঠীকে মানব সম্পদে পরিণত করতে শিক্ষার ডিজিটাল রূপান্তর অপরিহার্য। শিক্ষার জন্য দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিরবচ্ছিন্ন কানেকটিভিটি নিশ্চিত করতে সম্ভাব্য সবকিছু করতে সরকার বদ্ধপরিকর। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিটি ক্লাশ ডিজিটাল করার বিকল্প নেই। ইতোমধ্যে ৫শত ৮৭টি প্রতিষ্ঠানে ফ্রিওয়াইফাই জোন বাস্তবায়ন হয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফ্রিওয়াইফাই

জার্মানিতে ডয়চে টেলিকমের ফাইভজি উন্মোচন

টেকআলো প্রতিবেদক:টেলিকম ডয়চেল্যান্ড সম্প্রতি জার্মানিতে তাদের ফাইভজি নেটওয়ার্ক উন্মোচন করেছে। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, এ নেটওয়ার্ক চালু হওয়ার ফলে এক কোটি ৬ লাখ মানুষ এক হাজারেরও অধিক স্থান থেকে উচ্চগতিসম্পন্ন এ সেবা উপভোগ করতে পারবেন।ডয়চে টেলিকম (ডিটি) গ্রুপের জার্মানির ইউনিট জানিয়েছে, ১২ হাজার ফাইভজি অ্যান্টেনা ইতোমধ্যেই কার্যক্রম পরিচালনায় ব্যবহৃত হচ্ছে এবং প্রতিষ্ঠানটি

বাংলালিংক ও টিচ ইট-এর যৌথ উদ্যোগে পিইসি পরীক্ষার্থীদের জন্য অনলাইন লাইভ ক্লাস

টেকআলো প্রতিবেদক:বাংলাদেশের অন্যতম ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক ও কমিউনিটিভিত্তিক ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্ম টিচ ইট যৌথ উদ্যোগের মাধ্যমে পিইসি পরীক্ষার্থীদের জন্য অনলাইন লাইভ ক্লাস চালু করেছে। বাংলালিংক ও বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক অথোরিটি (বাংলাদেশ সরকারের আইসিটি বিভাগের অধীনস্থ প্রতিষ্ঠান) পরিচালিত ডিজিটাল উদ্যোক্তাদের সহযোগিতামূলক কর্মসূচি আইটি ইনকিউবেটরে অংশগ্রহণকারী একটি স্টার্টআপ টিচ ইট।দেশের সম্ভাবনাময় ডিজিটাল

“সম্মুখ কোভিড যোদ্ধাদের ২৫ হাজার ৫০০ নিরাপত্তা সামগ্রী প্রদান করলো ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ”

টেকআলো প্রতিবেদক:ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ কোভিড-১৯ যোদ্ধাদের সহযোগিতায় ২৫হাজার মাস্ক ও ৫শত মেডিক্যাল গগলস সেন্ট্রাল মেডিক্যাল স্টোর্স ডিপোতে হস্তান্তর করেছে। টেলিযোগাযোগ ও ইন্টারনেট সার্ভিস সচল ও রক্ষণাবেক্ষণে নিয়োজিত ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অধীন বিভিন্ন সংস্থার কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের জন্য বিটিসিএল এর অংশিজন প্রতিষ্ঠান জেডটিই এবং এডিএন টেলিকম লিমিটেড এই সব

এশিয়া প্যাসিফিকে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বিকাশে হুয়াওয়ের বিশেষ প্রোগ্রাম

টেকআলো প্রতিবেদক:বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে সম্প্রতি এক অনলাইন সম্মেলনের মাধ্যমে তাদের এশিয়া প্যাসিফিক পার্টনার অ্যাসেন্ড প্রোগ্রাম চালু করেছে। এ প্রোগ্রামের লক্ষ্য হচ্ছে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলকে আরও ডিজিটাল ও ইন্টেলিজেন্ট করতে একটি উদ্ভাবনী ও টেকসই এআই (আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা) ইকোসিস্টেম তৈরি করা। হুয়াওয়ে