‘ব্লকচেইন’ শুধুমাত্র ডেটাবেইজ নয় এটা একটি স্বাধীন ডেটা ব্যবহারের মাধ্যম : মোস্তাফা জব্বার

টেকআলো প্রতিবেদক:
বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস) সদস্যদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে স্কিল ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের আওতায় ‘ইন্ট্রোডাকশন টু ব্লকচেইন’ শীর্ষক একটি প্রশিক্ষণ কর্মসূচির আয়োজন করে।
২১ মে বিকেলে অনলাইনে এই প্রশিক্ষন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। প্রশিক্ষন কর্মসূচিতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি বলেন, নিত্যনতুন প্রযুক্তির সঙ্গে নিজেদের সম্পৃক্ত করতে পারলে ভবিষ্যত প্রযুক্তি নির্ভর পৃথিবীতে নিজেদের সক্ষমতা প্রকাশ করা সহজ হবে। ‘ব্লকচেইন’ শুধুমাত্র ডেটাবেইজ নয় বরঞ্চ এটা একটি স্বাধীন ডেটা ব্যবহারের মাধ্যম। ব্লকচেইন মানুষকে সহযোগিতা করবে। কোন সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে ব্লকচেইনের গবেষণালব্ধ তথ্য উপাত্ত সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে সহায়ক। এমনকি কোভিড-১৯ এর সংক্রমণের সময়ে আক্রান্ত ব্যক্তিদের তথ্যও গবেষণা করে এ সম্পর্কেও সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে কার্যকরী ভূমিকা রাখবে। বিসিএসকে এমন প্রশিক্ষণ কর্মসূচির আয়োজন করার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি।
প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল (বিপিসি) এর কো-অর্ডিনেটর ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব এ.এইচ.এম. শফিকুজ্জামান। তিনি বলেন, প্রযুক্তি খাতে নিত্যনতুন বিষয়ের মধ্যে ব্লকচেইন এবং বিটকয়েন বেশ আলোচিত। এই বিষয়গুলো সম্পর্কে সাধারণ মানুষের মধ্যে জানার সুযোগ তেমন একটা হয় না। এমন প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর মাধ্যমে বিসিএস সদস্যরা তাদের জ্ঞানকে সমৃদ্ধ করতে পারবেন বলেই আমার বিশ্বাস।
বিসিএস সভাপতি মো. শাহিদ-উল-মুনীর বলেন, করোনার প্রাদুর্ভাবে বাসায় অতিবাহিত সময়কে কাজে লাগিয়ে আমরা অনলাইনে এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচিগুলোর আয়োজন করেছি। প্রযুক্তির হালনাগাদ বিষয়গুলো সাধারণ জীবনকে পুরোপুরি বদলে দিতে পারে। এক সময় যে প্রযুক্তি মানুষের স্বপ্ন ছিল তা এখন মানুষ বাস্তবে দেখতে পারছে। তাই ব্লকচেইন সম্পর্কে আমাদের সদস্যদের সম্যক ধারণা দিতেই আমাদের এই আয়োজন। আশা করছি সংকটসময় সময়ে অনলাইনে আমরা নিয়মিতভাবে এই ধরণের প্রশিক্ষণ কর্মসূচির আয়োজন করবো।
বিসিএস মহাসচিব মুহাম্মদ মনিরুল ইসলাম এবং যুগ্ম মহাসচিব মো. মুজাহিদ আল বেরুনী সুজন এর সঞ্চালনায় প্রশিক্ষণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। প্রশিক্ষণ কর্মসূচি পরিচালনা করেন বিসিএস এর প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং ব্লকচেইন গবেষক খন্দকার আতিক-ই-রব্বানী বি-টেক (অনার্স), ইউকে, এফসিএ।। অনলাইনে প্রায় দুই শতাধিক বিসিএস সদস্য এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন। প্রশিক্ষণ কর্মসূচিটি বিসিএস এর ফেসবুক পেজে প্রচারিত হয়। এসময় প্রায় ২ হাজার দর্শনার্থী প্রশিক্ষণ কর্মসূচিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উপভোগ করেন।
ব্লকচেইন সম্পর্কে সম্যক ধারণা দিয়ে আতিক-ই-রব্বানী বলেন, ব্লকচেইন নতুন করে আলোচনায় এলেও এই দর্শনের ইতিহাস বহু পুরানো। নামে ব্লকচেইন হলেও এটা আসলে মানুষকে শিকলবদ্ধ করার বদলে উন্মুক্ত পৃথিবীতে বিচরণের সুযোগ দেয়। মূলকথা, ব্লকচেইন সেই চেইন নয়। এই চেইন দেয় মুক্তি।
দেড় ঘণ্টার সেশনে তিনি ব্লকচেইন সম্পর্কে দর্শনার্থীদের একটি স্বচ্ছ ধারণা প্রদান করেন। প্রসঙ্গত, আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির যৌথ উদ্যোগে এই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।