নিরবচ্ছিন্ন ডাক সেবা নিশ্চিত করতে ঢাকায় কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ

টেকআলো প্রতিবেদক:
কোভিড -১৯ সংক্রমণ বিস্তার রোধে সরকার ঘোষিত ছুটির সময়ে সঞ্চয়পত্র, ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক, ডাক জীবন বীমা, ডিজিটাল কমার্স এবং করোনা চিকিৎসা উপকরণ পিপিই ও কিট দেশব্যাপী সিভিল সার্জন কার্যালয় সমূহে দ্রুত পৌঁছানোসহ নিরবচ্ছিন্ন ডাক সেবা নিশ্চিত করতে ঢাকায় কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলা হয়েছে। কোভিড-১৯ সৃষ্ট বৈশ্বিক দুর্যোগে কাঙ্খিত সেবা নিশ্চিত করতে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এর নির্দেশে স্থাপিত ডাকঘর কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ গ্রাহক সেবায় কাজ করছে। কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষের নাম্বার সমূহ হচ্ছে ০১৫৫০০৬৩৭০০ -২২ এবং ওয়েবসাইট www.bdpost.gov.bd

কোভিড-১৯ জনিত সরকার ঘোষিত ছুটিকালীন সময়ে ডাক সেবা অব্যাহত রাখতে গত ২৮ মার্চ জিপিও, জেলা প্রধান ডাকঘর, উপজেলা ডাকঘর, সাব পোস্ট অফিস, টাউন সাব পোস্ট অফিস এবং সীমিত সংখ্যক গ্রামীণ ডাকঘর ও ডিজিটাল ডাকঘরের কার্যক্রম চালু রয়েছে। এ সকল ডাকঘর থেকে সকল কার্যদিবসে সকাল ১০টা হতে বেলা ১ টা পর্যন্ত ডাকসেবা সীমিত পরিসরে বিশেষ ব্যবস্থায় প্রদান করা হচ্ছে। এই লক্ষ্যে ডাক অধিদপ্তরের মেইল গাড়িসমূহ দেশব্যাপী নিয়মিত চলাচল করছে। সরকার ঘোষিত ছুটিকালীন সময়ে মধ্যে গত ২৮ মার্চ থেকে গত ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত মোট পাঁচ লাখ ১৯জন গ্রাহক ডাক সেবা গ্রহণ করেছেন। এ সময় পর্যন্ত মোট লেনদেন হয়েছে পাঁচশত আটত্রিশ কোটি বিরান্নব্বই লক্ষ সাতাশ হাজার ঊনআশি টাকা।
সরকারি এই ছুটিকালীন সময়ে সাতটি সাতটনি গাড়ি, এগারোটি ৫ টনি গাড়ি, ৩০টি ৩ টনি গাড়ি, ২০টি দেড় টনি গাড়ি এবং ১৯টি এক টনি কাভার ভ্যান ঢাকাস্হ কেন্দ্রীয় ঔষধাগার থেকে কিটস, পিপিই, ঔষধপত্র এবং মেইল ও ক্যাশ পরিবহণ করে আসছে।

এছাড়াও বৈশ্বিক এই দুর্যোগের সময়েও ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে ঘরে বসে নিরবচ্ছিন্নভাবে ডিজিটাল সেবা নির্বিঘ্ন করতে কতিপয় জরুরী উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। এর মধ্যে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের উদ্যোগে ইন্টারনেট ও টেলিফোন সেবাকে জরুরী সেবার অন্তর্ভূক্ত করে গত ২৪ মার্চ ২০২০ তারিখে সরকারি আদেশ অন্যতম। এর ফলে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারসহ ইন্টারনেট ও টেলিফোন সেবায় নিয়োজিত সার্ভিস সমূহ বিশেষ করে সাবমেরিন ক্যাবল, টেলিটক এবং বিটিসিএল এর জন্য যে কোন পরিস্থিতিতে নিরবচ্ছিন্ন ডিজিটাল সেবা নিশ্চিত করতে কাজ করার সুযোগ সৃষ্টি হয়। মন্ত্রী নেটওয়ার্ক সচল রাখাসহ পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে ব্রডব্যান্ড ও মোবাইল ইন্টারনেটের বর্ধিত চাহিদা মেটাতে নিরলসভাবে কাজ করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন।

গ্রাহক সাধারণকে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ডাকঘর সমূহ থেকে সেবা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।