নজরকাড়া ডিজাইনের শক্তিশালী ফিচারের নতুন ওয়ালটন ফোন

টেকআলো প্রতিবেদক:
নজরকাড়া ডিজাইনের নতুন স্মার্টফোন বাজারে ছাড়লো দেশীয় প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। বড় পর্দার ফোনটির মডেল ‘প্রিমো এনফোর’। ৩জিবি র‌্যাম ও ৩২জিবি রমের পর এবার ৪জিবি র‌্যাম ও ৬৪জিবি রমের আরেকটি ভার্সনে ফোনটি বাজারে এলো। পেছনে তিন ক্যামেরাযুক্ত সাশ্রয়ী মূল্যের ফোনটির দুর্দান্ত সব ফিচার স্মার্টফোনপ্রেমীদের অসাধারণ অভিজ্ঞতা দেবে।
ওয়ালটন মোবাইল ফোনের হেড অব সেলস আসিফুর রহমান খান বলেন, মিড রেঞ্জের ফোনটি পিএমএমএ ম্যাটেরিয়ালে তৈরি। এটি রেইনবো ব্ল্যাক এবং সি গ্রিন দুটি ভিন্ন রঙে বাজারে ছাড়া হয়েছে। রেইনবো ব্ল্যাক রঙের ফোনটির ব্যাককভার আলোতে রঙধনুর মতো বিভিন্ন রঙ ধারণ করে। যা ফোনটিকে করে তুলেছে আরো মনোমুগ্ধকর। এছাড়া সাধারণ প্লাস্টিক ম্যাটেরিয়াল থেকে এই ফোনে অনেক কম স্ক্র্যাচ পড়ে।
তিনি জানান, ৪জিবি র‌্যাম ও ৬৪জিবি রমের নতুন ভার্সনটি পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ১৩ হাজার ১৯৯ টাকায়। আর ৩জিবি র‌্যাম ও ৩২জিবি রমের ভার্সনটির দাম ১১ হাজার ৬৯৯ টাকা। অনলাইনের ই-প্লাজা (https://bit.ly/primoN4) থেকে কিনলে ৬ শতাংশ মূল্যছাড় মিলবে। ফলে ফোনটির দাম পড়বে যথাক্রমে ১২ হাজার ৪৯৭ এবং ১০ হাজার ৯৯৭ টাকা। এই মুহূর্তে এটিকে বাজারের সেরা বাজেট ফোন বলা যায়।
‘এনফোর’ মডেলের এই স্মার্টফোনে ব্যবহৃত হয়েছে ৬.৫ ইঞ্চির ইন-সেল এইচডি প্লাস ১৯:৯ রেশিওর নচ আইপিএস ডিসপ্লে। পর্দার রেজ্যুলেশন ১৬০০ বাই ৭২০ পিক্সেল। রয়েছে ২.৫ডি কার্ভড গ্লাসও। অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ পাই অপারেটিং সিস্টেমে পরিচালিত ফোনটির উচ্চগতি নিশ্চিত করতে রয়েছে ২.০ গিগাহার্জ গতির অক্টাকোর এআরএম কোর্টেক্স-এ৫৩ প্রসেসর এবং মালি-জি৭১ এমপি২ গ্রাফিক্স।
এই স্মার্টফোনের পেছনে রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশযুক্ত ১৬, ৮ এবং ২ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল অটোফোকাস ক্যামেরা। এফ ১.৮ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ এই ক্যামেরায় ব্যবহৃত হয়েছে পিডিএএফ প্রযুক্তি। ১/৩.১ ইঞ্চি সেন্সরের ৫পি লেন্স সমৃদ্ধ ১৬ মেগাপিক্সেলের প্রধান কামেরায় ছবি হবে নিখুঁত উজ্জ্বল ও রঙিন। ৬পি লেন্স সমৃদ্ধ ৮ মেগাপিক্সেলের সেকেন্ডারি ক্যামেরা দেবে ১২০ ডিগ্রি ওয়াইড অ্যাঙ্গেলে ছবি তোলার সুবিধা। আর ২ মেগাপিক্সেলের তৃতীয় ক্যামেরা নিশ্চিত করবে ছবি ডেফথ অব ফিল্ড।
দুর্দান্ত সেলফির জন্য এই ফোনের সামনে আছে পিডিএএফ প্রযুক্তির ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এফ ২.২ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ এই ক্যামেরায় ব্যবহৃত হয়েছে ৫পি লেন্স। উভয় পাশের ক্যামেরায় ফুল এইচডি ভিডিও ধারণ করা যাবে। রয়েছে পিকচার ইন পিকচার সুবিধা।
স্মার্টফোনটিতে ব্যবহৃত হয়েছে ৪ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। ডুয়াল সিমের ফোরজি স্মার্টফোনটির সুরক্ষায় রয়েছে ফেস আনলক এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। এই ফোনে ৩০ দিনের রিপ্লেসমেন্টসহ এই ফোনে ১০১ দিনের প্রায়োরিটি বিক্রয়োত্তর সেবা মিলবে। তাছাড়া, স্মার্টফোনে এক বছরের এবং ব্যাটারি ও চার্জারে ছয় মাসের বিক্রয়োত্তর সেবা তো থাকছেই।