জাতীয় শোক দিবস স্মরণে ‘আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন’র ওয়েবিনার

টেকআলো প্রতিবেদক:
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ওয়েবিনার আয়োজন করেছে ‘আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন’। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বাঙ্গালী জাতির জন্য একটি বিভিশিখাময় কালো অধ্যায়। ১৫ আগস্টে নিহত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবসহ ঐ ভয়াল রাতে নিহত সকল শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদন করার উদ্দেশ্যে এবং জাতির উপরে ১৫ আগস্টের যে বিরুপ প্রভাব সে সব বিষয় নিয়ে আলোকপাত করার লক্ষ্যে (২৯ আগস্ট) শনিবার ‘আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন’র উদ্যোগে একটি ওয়েবিনারের আয়োজন করা হয়। বিশেষ এই ওয়েবিনারের আলোচনার বিষয়বস্তু ছিল ‘১৫ই আগস্টের ঘৃণ্য হত্যাযজ্ঞ ও জাতির উপরে এর প্রভাব’।

ওয়েবিনারে আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেব উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত হোসাইন এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আছিয়া নীলা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনি বলেন, ‘এখন আমরা আবার বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে এগিয়ে চলছি বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে।’ তিনি তার বক্তব্যে ১৯৭৫ এর সার্বিক প্রেক্ষাপট এবং ৭৫ পরবর্তী দুঃসময়ের কথা তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, বাংলাদেশ আইসিটি বিভাগ ইতোমধ্যেই, বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে বিভিন্ন ডিজিটাল কনটেন্ট তৈরি করেছে এবং আরো ডিজিটাল কনটেন্ট তৈরির কাজ চলমান রয়েছে। তরুণ প্রজন্মের মধ্যে এসব ডিজিটাল কনটেন্ট ছড়িয়ে দেওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

এ ছাড়াও অনুষ্ঠানের সম্মানিত অতিথি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ ইনডেমনিটি অধ্যাদেশের সম্পর্কে তার মূল্যবান মতামত তুলে ধরেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মো .আবদুস সবুর ২১ আগস্টের ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা বিষয়ে বক্তব্য প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন। সংসদ সদস্য এবং আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা রুবিনা আক্তার মিরা ১৫ আগস্টের ভয়াবহতা, নৃশংসতা, বিষয়ে আলোচনা করেন। একই সঙ্গে তিনি আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের কার্যকলাপ তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের ভাইস চেয়ারম্যান ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য অধ্যাপক ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন, এশিয়ান ওশেনিয়ান কম্পিউটিং ইন্ডাস্ট্রি অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ এইচ কাফি, আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. হাবিবুল্লাহ তুহিন, , বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েসন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং (বাক্য)-এর সভাপতি ওয়াহিদুর রহমান শরীফ, আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের ইসি মেম্বার রেজওয়ানা খান, মো. ইউসুফ খান, বরদা ভুষণ রয় লিটন, আ হ ম জাহিদুর রেজা, মাহবুবুর রহমান, কামরুল হাসান ইমন, মো. ফখরুল হাসান শামীম প্রমূখ।